1. bdwebexperts@gmail.com : admin :
  2. makadirchy@gmail.com : News Desk : BABUL AHMED
গাছ লাগানোর সওয়াব ও ফজিলত - Daily Time Desk
August 3, 2021, 4:46 pm
শিরোনামঃ
১০ তারিখ পর্যন্ত ‘লকডাউন’ বৃদ্ধ প্রতিবন্ধীর কথা রাখলেন চুয়াডাঙ্গার-পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম বানিয়াচংয়ে জাতীয় দিবসসমূহ যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করতে প্রস্তুতি সভা সিলেটে লকডাউনে ১০ম দিনে ৩০টি যানবাহনে মামলা বানিয়াচংয়ে ইউনিয়ন পর্যায়ে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রয়োগ সফল করতে ভার্চুয়ালি সভা রাজশাহীতে করোনা রোগীদের পরীক্ষা করতে হাসপাতালের বাইরে যেতে হবে না:পরিচালক শামীম ইয়াজদানী শিল্পাঞ্চল এলাকায় নিরাপদ কর্মপরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে:ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের অতি.আইজিপি সিলেটে লকডাউনে ৯ম দিনে ভ্রাম্যমান আদালতের ৭১,১০০ টাকা জরিমানা কিছু বিদেশি গণমাধ্যম দেশ ও সরকারের বিরুদ্ধে ভুল ও অসত্য সংবাদ দেয়-তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী’ আগামীকাল দুপুর পর্যন্ত চলবে লঞ্চ

গাছ লাগানোর সওয়াব ও ফজিলত

সাংবাদিকের নাম
  • আপডেট : Sunday, June 6, 2021,
  • 28 ভিউ

দূষণমুক্ত ও ভারসাম্যপূর্ণ পরিবেশ মানবজাতির জন্য অত্যন্ত জরুরি। আর এক্ষেত্রে গাছের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। পরিবেশ রক্ষা ছাড়াও মহানবী (সা.)-এর আদেশ রক্ষায় গাছ লাগানো উচিত। কারণ, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় গাছ লাগাতে ও পরিচর্যা করতে তিনি বিভিন্ন হাদিসে উৎসাহ ও নির্দেশনা দিয়েছেন।

গাছপালা ও প্রকৃতি নিয়ে কোরআনের কথা

আল্লাহ তাআলা ফলবান গাছপালা ও সবুজ-শ্যামল সৃষ্টি করেছেন। বনভূমির মাধ্যমে পৃথিবীকে সুশোভিত করেছেন। প্রকৃতিকে অপরূপ সৌন্দর্যমণ্ডিত করেছেন। গাছপালার মাধ্যমে ভূমণ্ডল ও পরিবেশ-প্রাকৃতিক ভারসাম্য সংরক্ষণের শিক্ষা দিয়েছেন।

পবিত্র কোরআনে বলা হয়েছে, ‘তিনি তোমাদের জন্য তা (পানি) দিয়ে জন্মান শস্য, জাইতুন, খেজুরগাছ, আঙুর ও সব ধরনের ফল। অবশ্যই এতে চিন্তাশীল সম্প্রদায়ের জন্য রয়েছে নিদর্শন।’ (সুরা নাহল, আয়াত: ১১)

মূলত এসব কিছু মানুষের প্রয়োজনীয় জীবনোপকরণ হিসেবে তৈরি করেছেন। এছাড়াও পবিত্র কোরআনের বিভিন্ন স্থানে বৈচিত্র্যময় প্রকৃতির কিছু দৃশ্য মানুষের সামনে তুলে ধরা হয়েছে। যেন সব কিছু দেখে মানুষ আল্লাহর শক্তিমত্তার কথা স্মরণ করে।

গাছপালা যে কত বড় নিয়ামত, কোরআনে বিভিন্ন আয়াতের মাধ্যমে তা প্রতীয়মান হয়। আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘তারা কি লক্ষ করে না, আমি ঊষর ভূমির ওপর পানি প্রবাহিত করে তার সাহায্যে উদগত করি শস্য, যা থেকে তাদের গবাদি পশু এবং তারা নিজেরা আহার গ্রহণ করে।’ (সুরা সাজদা, আয়াত: ২৭)

গাছ লাগাতে হাদিসে নির্দেশ

হাদিসে এসেছে, ‘যদি কোনো মুসলমান একটি বৃক্ষ রোপণ করে অথবা কোনো শস্য উৎপাদন করে এবং তা থেকে কোনো মানুষ কিংবা পাখি অথবা পশু ভক্ষণ করে, তবে তা উৎপাদনকারীর জন্য সদকা (দান) স্বরূপ গণ্য হবে। ’ (বুখারি, হাদিস: ২৩২০; মুসলিম, হাদিস: ১৫৬৩/১২)

এ হাদিসটি আরও স্পষ্ট করে অন্য জায়গায় বলা হয়েছে, ‘কোনো ব্যক্তি বৃক্ষরোপণ করে তা ফলদার হওয়া পর্যন্ত তার পরিচর্যা ও সংরক্ষণে ধৈর্য ধারণ করে, তার প্রতিটি ফল যা নষ্ট হয়, তার বিনিময়ে আল্লাহ তাআলা তাকে সদকার নেকি দেবেন। ’ (মুসনাদ আহমাদ: ১৬৭০২)

অন্য হাদিসে বলা হয়েছে, ‘যে ব্যক্তি কোনো বৃক্ষ রোপণ করে, আল্লাহ তাআলা এর বিনিময়ে তাকে ওই বৃক্ষের ফলের সমপরিমাণ প্রতিদান দান করবেন। ’ (মুসনাদে আহমাদ, হাদিস : ২৩৫৬৭)

গাছ লাগানোর গুরুত্ব ও সওয়াব

আনাস (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে বৃক্ষরোপণ ও পরিচর্যা করতে নির্দেশ দিয়ে মহানবী (সা.) বলেছেন, ‘যদি নিশ্চিতভাবে জানো যে কিয়ামত এসে গেছে, তখন হাতে যদি একটি গাছের চারা থাকে, যা রোপণ করা যায়, তবে সেই চারাটি রোপণ করবে।’ (বুখারি, আদাবুল মুফরাদ: ৪৭৯; মুসনাদ আহমদ, হাদিস: ৩/১৮৩)

অন্য বর্ণনায় মহানবী (সা.) ইরশাদ করেছেন, ‘কিয়ামত এসে গেছে, এমন অবস্থায় তোমাদের কারো হাতে যদি ছোট একটি খেজুরগাছ থাকে, তাহলে সে যেন গাছটি রোপণ করে দেয়।’ (মুসনাদে আহমাদ, হাদিস: ১২৯০২; আল-আদাবুল মুফরাদ, হাদিস: ৪৭৯; মুসনাদে বাজজার, হাদিস: ৭৪০৮)

গাছের ছায়ায় মহানবী (সা.)

আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা.) বর্ণনা করেছেন, ‘মক্কা এবং মদীনার মাঝে অবস্থিত একটি বৃক্ষের নিকট যখন তিনি আসতেন তখন তার নীচে শুয়ে বিশ্রাম করতেন। তিনি বলতেন রাসুলুল্লাহ (সা.) এরূপ করতেন। (আত-তারগিব ওয়াত তারহিব, হাদিস: ৪৭)

গাছ-বৃক্ষ প্রকৃতি ও পরিবেশের বন্ধু। তাই নির্বিচারে গাছ না কেটে প্রচুর বৃক্ষরোপণের উদ্যোগ গ্রহণ করি। আল্লাহ আমাদের তাওফিক দান করুন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
©All rights রেসেরভেদ ©2021 DailyTimeDesk
Theme Customized BY WEB DESIGN BD