ফেসবুক: বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার হলেন সাবনাজ রশিদ

43

বাংলাদেশি লেখক, কলামিস্ট এবং সামাজ বিজ্ঞানী সাবনাজ রশিদ দিয়াকে কান্ট্রি ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

সোমবার সিঙ্গাপুরের ফেসবুক আঞ্চলিক সদরদপ্তর এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের মধ্যকার ভার্চুয়াল বৈঠকে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এ নিয়োগের কথা জানায় বলে তথ্য অধিদপ্তরের (পিআইডি) এক হ্যান্ডআউটে জানানো হয়েছে।

মন্ত্রী এ পদক্ষেপ গ্রহণকে একটি ফলপ্রসূ উদ্যোগ বলে ফেসবুককে ধন্যবাদ জানান।

তিনি বাংলাদেশের আইন ও বিধি বিধান মেনে চলা ছাড়াও দেশ ও দেশের বাইরে থেকে রাষ্ট্রীয়, সামাজিক এবং ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও সম্মান বিঘ্নকারী মিথ্যা ও গুজব বা অপপ্রচারমূলক উপাত্ত প্রচার না করা ছাড়াও সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িকতা, রাষ্ট্রদ্রোহিতা, পর্নোগ্রাফি ও বাংলাদেশের সামাজিক-সাংস্কৃতিক মূল্যবোধবিরোধী উপাত্ত প্রচার না করতে ফেসবুকের প্রতি আহ্বান জানান।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার আগে ২০০৬ সালে সামাজিক উদ্যোগ ওয়ান ডিগ্রি ইনিশিয়েটিভ ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন সাবনাজ। যা প্রযুক্তি ব্যবহার করে কীভাবে জনসেবা দেয়া যায় সেসব উদ্ভাবন বিকাশের জন্য ১৬-২৫ বছর বয়সীদের পরামর্শদাতা হিসেবে কাজ করে। এ সংস্থাটি বাংলাদেশে ২০০টিরও বেশি প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। যার মাধ্যমে প্রায় ১২ লাখ মানুষ উপকৃত হয়েছে। সংস্থাটি বিশ্বব্যাপী ১৫ হাজার তরুণদের মেন্টর হিসেবে কাজ করেছে। যাদের ৬৫ ভাগই নারী।

২০১৩ সালের এপ্রিলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরকার রানা প্লাজা ধসে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় তাদের প্রচেষ্টাকে স্বীকৃতি দিতে সাবনাজ এবং ওয়ান ডিগ্রি ইনিশিয়েটিভ ফাউন্ডেশনকে পুরষ্কৃত করে।

২০১৪ সালে ওয়ান ডিগ্রি ইনিশিয়েটিভ ফাউন্ডেশনকে স্বীকৃতি দেয় জাতিসংঘ এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত সাত ইউরোপীয় এবং লাতিন আমেরিকান রাষ্ট্রদূত। দেশে লিঙ্গ বৈষম্য দূরীকরণে তাদের প্রচেষ্টার জন্য সংস্থাটিকে পুরষ্কৃত করা হয়।

সাবনাজ রশিদ দিয়া দেশের ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টারে প্রতিবেদক, সহ-সম্পাদক ও কলামিস্ট হিসেবে ১৪ বছর কাজ করেছেন।